জটিল সমীকরণে তিশা-ফারহান-সুনেরাহ


chandpurnews24 প্রকাশের সময় : নভেম্বর ১৮, ২০২৩, ৯:৪৬ অপরাহ্ন /
জটিল সমীকরণে তিশা-ফারহান-সুনেরাহ

হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেই ফেসবুকে রহস্যময় পোস্ট করেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী তানজিন তিশা। তার সেই পোস্টে বিতর্কিত অনেক প্রশ্নের উত্তর পাওয়া না গেলেও জানা গেছে জীবনে তার অনেক শত্রু রয়েছে। প্রয়োজনে তাদের নাম মিডিয়ায় প্রকাশ করবেন–তিশার এমন স্ট্যাটাসের এক ঘণ্টার মাথায় দেশের আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী সুনেরাহ বিন্তে কামালও ফেসবুকে এক রহস্যময় পোস্ট ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করেন। দুই অভিনেত্রীর এমন পোস্টে এখন নেটিজেনরা কষছেন সম্পর্কের জটিল সমীকরণ ।

ঘটনার শুরু বুধবার (১৫ নভেম্বর) সন্ধ্যায়। ওইদিন তিশা তার ফেসবুকে অভিনেতা মুশফিক আর ফারহান ও নিজের একটি অন্তরঙ্গ ভিডিও পোস্ট করেন। তবে কিছুক্ষণ পরেই অজানা কারণে তা ডিলেট করে দেন। তবে আপলোড করা সে ভিডিও তিশা ডিলেট করলেও নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় সেই ভিডিও। আর ওই ভিডিও থেকেই নেটপাড়ায় ছড়িয়ে পড়ে তিশা-ফারহানের প্রেমের গুঞ্জন।

বিশ্বস্ত সূত্র থেকে জানা যায়, ভাইরাল ওই ভিডিও নিজের ফেসবুক থেকে ডিলেটের পর তিশা তার নিজের বাসা রাজারবাগ থেকে ফারহানের উত্তরার বাসায় যান। তারপর সেখান থেকে নিজের বাসায় ফিরে ওইদিন রাতেই স্লিপিং পিলের ডোজ বেশি খেয়ে নেন অভিনেত্রী।

স্লিপিং পিলের ডোজ বেশি খাওয়ার ফলে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে দ্রুত তিশাকে তার পরিবার প্রথমে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। ওই হাসপাতাল বিষয়টি সুইসাইড কেস মনে করায় সেখান থেকে অভিনেত্রীকে দ্রুত স্থানান্তর করা হয় স্কয়ার হাসপাতালে।
 
ওই হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার পর বৃহস্পতিবার ( ১৬ নভেম্বর) বিকেল ৪টায় অভিনয় শিল্পী সংঘের পক্ষ থেকে সাংবাদিকদের পাঠানো এক বার্তার মাধ্যমে জানা যায়, সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন তিশা।
এরপই তিশা তার ফেসবুকে দেন এক রহস্যময় স্ট্যাটাস। ওই স্ট্যাটাসে তিনি আত্মহত্যা চেষ্টার কথা অস্বীকার করেন। বলেন, ব্যক্তি তিশা কখনোই কারো জন্য আত্মহত্যার পথ বেছে নেবেন না।
এমন মন্তব্যের পর তিশা জানান, মিডিয়ায় তার কিছু সহকর্মী রয়েছেন যারা তার ক্যারিয়ার এমনকি ব্যক্তিজীবনেও ক্ষতির কারণ হয়ে উঠতে পারে। খুব শিগগিরই তাদের নাম প্রেস কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রকাশ করবেন তিনি। এরপরই নতুন প্যারায় স্পষ্টভাবে অভিনেতা  মুশফিক আর ফারহানের নাম লিখে সে সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু না লিখেই ফেসবুক পোস্টের লেখাটি শেষ করে দেন অভিনেত্রী।
তিশার এ পোস্টের ঠিক এক ঘণ্টা পর রহস্যময় পোস্ট করেন অভিনেত্রী সুনেরাহ। তার পোস্টের লেখার মাধ্যমে স্পষ্ট হয়ে উঠেছে যে, তিনি কাউকে উদ্দেশ্য করে এ পোস্ট করেছেন। সুনেরাহর ওই পোস্টের যে অংশে নেটিজেনদের চোখ আটকে গেছে তা হলো সুনেরাহ লিখেছেন, আমি মিথ্যার আশ্রয় নেই না এবং ইনশাআল্লাহ কখনও নিবও না। আমি যদি বলে থাকি যে সেখানে বন্ধুক্ত ছাড়া কিছুই ছিলনা/হবে না, সেটাই এক মাত্র সত্য। বাকিটা, আমি বিশ্বাস করি যে সময় সব বলে দেয়। আমাকে দয়া করে আমার বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে নোংরাভাবে জড়াবেন না। ধন্যবাদ। 🙏
সুনেরাহর ওই পোস্টের ৪ ঘণ্টা পর তিশা ফেসবুক লাইভে আসেন। সেখানেও তিশা আবার স্পষ্ট করে দেন যে, কিছু শত্রুমহল তার জীবন ও ক্যারিয়ার দুটোই খারাপ করার চেষ্টা করছে। যাদের নাম খুব শিগগরিই মিডিয়ায় প্রকাশের কথা আবারও মনে করিয়ে দেন তিশা।
তিশা ও সুনেরাহর এমন রহস্যময় পোস্টে নানা প্রশ্নের দানা বেঁধেছে ভক্ত আর নেটিজেনদের মনে। তাদের ধারণা, এ দুই পোস্টের মধ্যে কোনো সম্পর্ক রয়েছে। যে সম্পর্ক ভবিষ্যতে খোলাসা করবে কোনো জটিল কারণ।